• ad-5
    হোমিওপ্যাথি বিডি.কম ওয়েব সাইটে আপনি কি নতুন ? তা হলে এখানে ক্লিক করুন । হোমিওপ্যাথি বিডি.কম সাইট থেকে উপাজিত অর্থের এক অংশ গরীব দূঃখীদের জন্য ব্যায় করা হয় । একটি ফ্রী হোমিওপ্যাথি চিকিৎসার জন্য তৈরী বাংলা ব্লগ সাইট ।

পটাশিয়ামের ঘাটতি বুঝে নিন ৮টি লক্ষণ

পটাশিয়ামের ঘাটতি বুঝে নিন ৮টি লক্ষণ
এই পোষ্টটি সংরক্ষণ করা অথবা পরে পড়ার জন্য নিচের Save to Facebook বাটনে ক্লিক করুন ।

আপনার পটাসিয়াম ঘাটতির লক্ষণগুলি খুবই সূক্ষ্ম হতে পারে। আপনার অবশ্যই মনোযোগ দেওয়া প্রয়োজন।

আপনার শরীরের জন্য পটাসিয়াম কতটা গুরুত্বপূর্ণ তা হয়ত আপনি হরহামেশাই শোনেন না। কিন্তু আপনার শোনা উচিৎ। শরীরের মাসলের শক্তির জন্য, নার্ভ বা স্নায়ুর সঠিকভাবে কাজ করার জন্য এবং হৃদযন্ত্র সুস্থ রাখার জন্য পটাসিয়াম একটি অত্যাবশ্যকীয় উপাদান।

বিভিন্ন খাবার যেমন তরমুজ, অ্যাভোকাডো, কলা, হোয়াইট বিনস ইত্যাদিতে প্রচুর পটাসিয়াম আছে।

প্রতিদিন সাধারণত ৪৭০০ মিলিগ্রাম পটাসিয়াম গ্রহণ করার পরামর্শ দেওয়া হয়ে থাকে। তবে এই পরিমাণ পটাসিয়াম গ্রহণ করার পরেও পটাসিয়াম ঘাটতি থাকতে পারে।

কেন?

কারণ আপনি যত বেশি সোডিয়াম (লবন)গ্রহণ করেন, আপনার শরীর থেকে তত বেশি পটাসিয়াম বেরিয়ে যায়। ফলে আপনি হয়ত লক্ষ্যই করেন না যে আপনার পটাসিয়াম ঘাটতি আছে।
আপনি যত বেশি সোডিয়াম গ্রহণ করেন, আপনার শরীর থেকে তত বেশি পটাসিয়াম বেরিয়ে যায়।

যদি আপনার মধ্যে নিচের লক্ষণগুলি দেখা যায় বা আপনি নিচের উপসর্গগুলি বোধ করেন, কিন্তু এর পিছনের কারণ বুঝতে পারছেন না তাহলে ধরে নিন আপনার পটাসিয়াম ঘাটতি রয়েছে। সেই ক্ষেত্রে আপনার পটাসিয়াম লেভেল টেস্ট করানো উচিৎ।

১. আপনি সবসময় অবসাদগ্রস্ত বা নির্জীব থাকেন
আপনার শরীরের প্রতিটা কোষের সঠিক ফাংশনের জন্য পটাসিয়াম দরকার। আর পটাসিয়ামের যথেষ্ট ঘাটতি থাকলে সবসময় আপনার মধ্যে অবসাদ দেখা যাবে। আপনি নিয়মিত যথেষ্ট পরিমাণ ঘুমানোর পরেও নিয়মিত পরিশ্রম করলেই যদি বিধ্বস্ত হয়ে পড়েন, তাহলে আপনার পটাসিয়াম ঘাটতি আছে।

২. আপনার উচ্চ রক্তচাপ আছে
পটাসিয়াম রক্তনালীকে প্রসারিত করে এবং সহজ রাখে। যথেষ্ট পরিমাণ পটাসিয়ামের অভাবে রক্তনালী সংকুচিত হয়ে যায়, ফলে রক্তচাপ বেড়ে যায়।

৩. আপনি প্যাকেট ও বক্সের খাবার অনেক খেয়ে থাকেন
আপনি যদি অতিরিক্ত পরিমাণে প্রক্রিয়াজাত খাবার বা প্রসেসড ফুড খেয়ে থাকেন, তার মানে হচ্ছে আপনার পটাসিয়াম ঘাটতি আছে। কারণ চিপস, ক্র্যাকার্স, ফ্রোজেন খাবারে প্রচুর সোডিয়াম থাকে। ফলে এগুলি আপনার শরীরের পটাসিয়াম বের করে দেয়।

৪. আপনার মাসল যদি দুর্বল মনে হয়
মাসলের গঠন এবং কার্যকারিতার জন্য পটাসিয়াম খুবই গুরুত্বপূর্ণ। ফলে, অতিরিক্ত পটাসিয়াম ঘাটতির কারণে আপনার মাসল ব্যথা ও খিচুনি হতে পারে।

৫. অনিয়মিত হার্টবিট
হঠাৎ করেই হার্টবিট খুব ধীরগতির হয়ে যাওয়া বা খুব দ্রুতগতির হয়ে যাওয়া বেশ ভয়ঙ্কর ব্যাপার। অনেকগুলি কারণে এটা হতে পারে, পটাসিয়ামের অভাব তার মধ্যে অন্যতম।

৬. মাথা ঘুরানো ও নিস্তেজ হয়ে যাওয়া
পটাসিয়ামের ঘাটতি খুব বেশি থাকলে হার্টবিট খুব ধীরগতির হয়ে আপনার এমন মনে হতে পারে যে আপনি মারা যাচ্ছেন। এটা যে অহরহ ঘটে, তেমন না; আবার পটাসিয়াম ঘাটতি ছাড়া অন্য কারণেও এটা হতে পারে। তবে এ ধরনের উপসর্গ থাকলে চিকিৎসকের সাথে যোগাযোগ করুন, পটাসিয়াম লেভেল চেক করুন।

৭. কোষ্ঠকাঠিন্য
পটাসিয়ামের পরিমাণ শরীরে কম থাকলে তা শরীরের অন্য ফাংশনগুলি স্লো বা ধীরগতির করে দেয়। হজম বা পরিপাকতন্ত্রের ক্ষেত্রেও তাই ঘটে। পেট ফাঁপা, পেট ব্যথা ইত্যাদি হতে পারে। পেট ফুলে যেতে পারে। অনেকগুলি কারণেই এইসব হয়। তবে পটাসিয়াম ঘাটতির কারণে এসব হওয়া খুবই স্বাভাবিক।

৮. অসাড় বা হতভম্ব হয়ে থাকা
পটাসিয়াম আপনার নার্ভাস সিস্টেমকে সুস্থ রাখে। আর পটাসিয়াম ছাড়া আপনার ক্রিয়া-প্রতিক্রিয়া ভারসাম্যপূর্ণ অবস্থানে থাকবে না। আপনি অহেতুক উত্তেজনা বোধ করবেন।

ঔষধি গাছ সম্পর্কে জানতে এখানে ক্লিক করুন ।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

-
namaj.info bd news update 24 short film bd _Add
.
*** নিজে সুস্থ থাকি , অন্যকে সুস্থ রাখি । সাস্থ্য ও চিকিৎসা বিষয়ে যে কোন প্রশ্ন থাকলে জানাতে পারেন ! হোমিওপ্যাথি বিডি.কম একটি ফ্রী হোমিওপ্যাথি চিকিৎসার জন্য তৈরী বাংলা ব্লগ সাইট । ***